এসেছে চটপটে রোবট

1

 

 

আলোরপথ ২৪ ডটকম

প্রতিদিনই নানা অগ্রগতি হচ্ছে আধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির জগতে । কিন্তু সেগুলোর মধ্যে খুবই গুরুত্বপূর্ণ অর্জনের সংখ্যা হাতে গোনা। প্রযুক্তি ব্যবহারে এ বছরে নতুন মাত্রা এনে দিয়েছে—এমন কয়েকটি অগ্রগতি চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রযুক্তিবিদদের এসব বড় সাফল্য আগামী বছরগুলোয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

হাঁটাচলায় রোবট
কম্পিউটার বিজ্ঞানীরা এবার এমন কিছু যন্ত্র তৈরি করেছেন, যেগুলো ভারসাম্য বজায় রেখে এবড়োখেবড়ো বা অমসৃণ ভূখণ্ডের ওপর দিয়ে হাঁটাচলা করতে ও দৌড়াতে সক্ষম। ফলে যানবাহন চলতে পারে না এমন পরিবেশে মানুষের মতোই এরা অনায়াসে মানিয়ে নিতে পারবে। আশা করা হচ্ছে এতে রোবট ব্যবহার করার কার্যকারিতা অনেক বেড়ে যাবে|
বড় সাফল্য
রোবটগুলো অমসৃণ ও নড়বড়ে ভূখণ্ড বা পৃষ্ঠতলের ওপর চলাফেরা করতে পারছে|
কেন গুরুত্বপূর্ণ
বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে চাকাযুক্ত যন্ত্র যেতে পারে না, কিন্তু পদচারী মানুষ, প্রাণী বা রোবট সেখানে চলাচল করতে পারে|পায়ের ওপর ভর করে হাঁটার ব্যাপারটা দেখতে যতই সাধারণ মনে হোক না কেন, এর নেপথ্যে রয়েছে অসাধারণ এক জৈব রাসায়নিক প্রকৌশল। প্রতিটি পদক্ষেপের জন্য প্রয়োজন ভারসাম্য এবং অতি সামান্য সময়ে নিজেকে স্থিতিশীলতার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার সামর্থ্য। কখনো কখনো খুব দ্রুত ঠিক করতে হয় কোথায় পা ফেলতে হবে এবং হিসাব করে নিতে হয় আকস্মিক গতিপথ বদলের জন্য ঠিক কতটুকু জোর দিতে হবে।এ ব্যাপারে রোবটেরা স্বভাবতই খুব ভালো করতে পারেনি।

প্রযুক্তিবিদেরা রোবটের এই সীমাবদ্ধতা দূর করতে  ইতিমধ্যে নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। সেথ টেলার এবং রাস টেড্রেকের নেতৃত্বে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) এক দল গবেষক তৈরি করেছেন প্রচলিত শক্তিশালী ভারসাম্য সফটওয়্যারের একটি বিকল্প। এটির সাহায্যে রোবটেরা তুলনামূলক অমসৃণ ও প্রতিকূল পথ বা পৃষ্ঠতলের ওপর দিয়ে দ্রুত চলাফেরা করতে পারবে।
ইতিমধ্যে অ্যাটলাস নামের একটি রোবট  অমসৃণ জায়গায় হাঁটার সামর্থ্য প্রমাণ করেছে। আসিমো এবং কিউরিও নামের আরও দুটি রোবট হাঁটতে পারলেও দ্রুত ভারসাম্য রাখতে ব্যর্থ হয়। ফলে মানুষের উপযোগী পরিবেশে সেগুলো ব্যবহার করার কার্যকারিতা নিয়ে সংশয় রয়েছে।
রোবটেরা ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারলে জরুরি উদ্ধার তৎপরতায় সেগুলোর উপযোগিতা অনেক বেড়ে যাবে। তা ছাড়া রোবট মানুষের ঘরোয়া কাজকর্ম এবং বয়স্ক মানুষকে পরিচর্যার মতো নিত্যনৈমিত্তিক কাজেও সহায়তা করতে পারবে । কার্নেগি মেলন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক এবং বোস্টন ডাইনামিকসের সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক রেইবার্ট বলেন, মানুষের সমকক্ষ কোনো যন্ত্র তৈরি করতে চাইলে তাকে অবশ্যই হাঁটার সামর্থ্য দেখাতে হবে।
অফিস বা বাড়ির দৈনন্দিন কাজকর্ম করে দেওয়ার জন্য অ্যাটলাস নামের রোবটটি এই মুহূর্তে প্রস্তুত নয়। কারণ, বোস্টন ডাইনামিকস নামের একটি প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠানের তৈরি এই রোবটের শক্তিশালী ডিজেল ইঞ্জিন বেশ আওয়াজ করে। আর এটির টাইটানিয়াম ধাতুর তৈরি শক্ত হাতগুলো আশপাশের লোকজনের জন্য বিপজ্জনক। কিন্তু পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণকক্ষের মতো ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে উদ্ধার বা সংস্কারকাজে রোবটেরা বেশ কার্যকর হতে পারে।

Share.

১ Comment

  1.   Such was the state of cardiovascular science at the turn of the th century.Allergy to latex or other hidden allergens such as food antigens may masquerade as acute urticaria if the antigenic nature of the stimulus is not identified through a combination of history immunoassay and prick and patch testing. cialis 5mg Cohen prescribed an antihypertensive antiemetic antianginal to relieve her symptoms of queasy stomach.Immunol.Treatment may not be needed if you do not develop anemia due to blood loss.Nanotechnology delivers moleculesized machines that melt blood clots with lasers invade and destroy tumor cells and attach powerful antigerm drugs directly onto microscopic invaders. cheapest cialis You can think of emotions as a sort of weather report they give us a status of current affairs and help us prepare for possibly stormy weather to come.d. Viagra Pericardial friction rub is a classic finding on examination.. levitra cout The trend today is for fiveyear survival rates to increase in some regions by more than one percent per year although aging populations may affect future figures.The samples have to be specially prepared for electron microscopic examination.. canadian pharmacy cialis 20mg fracturesStaging of NSCLC by assessing mediastinal lymph nodes is critical.