ছিটমহল বিনিময়ে মমতা প্রকাশ্য সমর্থন দিলেন

1

 

আলোরপথ ২৪ ডটকম

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে স্থলসীমান্ত চুক্তির বিষয়ে ভারতের কেন্দ্র ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফে চোখে পড়ার মতো তৎপরতা দেখা গেছে । পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুই দেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময়ে প্রকাশ্য সভায় তাঁর সমর্থন দিয়েছেন । এর আগের  সীমান্ত চুক্তির জন্য সমর্থন আদায় করতে আসাম রাজ্যের দলীয় সাংসদদের নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সভাপতি অমিত শাহ।
কোচবিহারের নয়ারহাট থানার ডাকুরহাটে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের উদ্যোগে জনসভার আয়োজন করা হয়। সেই সভায় মমতা ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে থাকা ছিটমহল বিনিময়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তে সমর্থন দিয়েছেন। মমতার সভাস্থল ডাকুরহাটের ১৭০ মিটার দূরেই ভারতীয় ভূখণ্ডের বাংলাদেশের ছিটমহল করলা। এই জনসভায় যোগ দিয়ে বেলা দেড়টায় হাজারো মানুষের করতালির মধ্যে মমতা বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার চায়, এই চুক্তি সম্পাদিত হোক। আমরা কেন্দ্রীয় সরকারকে এই সমর্থনের কথা আগেই জানিয়ে দিয়েছি। আমরা চাই, ছিটমহলের মানুষ ফিরে পাক তাদের মৌলিক অধিকার।’
মমতা আরও বলেন, ছিটমহলবাসীর উন্নয়নের জন্য এখানে গড়তে হবে রাস্তাঘাট, বাজার, স্কুল, কলেজ ও হাসপাতাল। আর এসব উন্নয়নকাজের খরচ বহন করতে হবে কেন্দ্রকে।
১৬২টি ছিটমহল আছে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে । সভার শুরুতে এর স্মারক হিসেবে ১৬২টি গোলাপের তোড়া দিয়ে মমতাকে শুভেচ্ছা জানান ছিটমহলবাসী। মমতাও প্রবীণ ১৪ জন ছিটমহলবাসীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সংবর্ধিত করেন।
এদিকে ছিটমহল বিনিময় চুক্তি সম্পাদনের ব্যাপারে মমতার সম্মতি মেলায় ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির সহ-সম্পাদক দীপ্তিমান সেনগুপ্ত সন্তোষ প্রকাশ করে  বলেন, আজকের রাজ্য সরকারের ঘোষণা ছিটমহলবাসীকে নতুনভাবে জীবনযাপনের পথের সন্ধান দিয়েছে।
এদিকে আসামের দলীয় সাত সাংসদকে বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, সময় নষ্ট না করে রাজ্যে গিয়ে সীমান্ত চুক্তির প্রয়োজনীয়তার কথা মানুষকে বোঝান।
দিল্লিতে দলীয় কার্যালয়ে অমিত শাহ সাংসদদের বলেন, এই চুক্তি আসামের মঙ্গলের জন্য। এই চুক্তির রূপায়ণের পর আসামে অনুপ্রবেশই শুধু বন্ধ হবে না, চোরাচালান থেকে শুরু করে যাবতীয় অসামাজিক কাজকর্ম বন্ধ হয়ে যাবে।
আসামের চারবারের সাংসদ রাজেন গোহাঁই ও প্রথমবার জয়ী রামপ্রসাদ শর্মা গতকাল সংসদ ভবনে  বলেন, ‘এই চুক্তি যে কতটা দরকার, এই বৈঠকের পর তা আরও পরিষ্কার হলো। আমরা দলীয় নেতাদের আরজি জানাব, অবিলম্বে যেন এই সংবিধান সংশোধন বিল পাস করানো হয়।’ সংসদের চলতি অধিবেশনেই সরকার বিলটি পাস করাতে চাইছে। তবে কবে তা আনা হবে, এখনো ঠিক হয়নি।

Share.

১ Comment

  1. Basophilia is an increase in basophilic granulocytes seen in certain types of leukemia. comprar priligy original Another chapter opened in when Austrian physicians Josef Breuer and Sigmund Freud published Studies in HysteriaPollard C.Luteinizing hormone LH follicle stimulating hormone FSH levels were increased during exacerbation.condition of bad abnormal formation of cells dysDiGeorge syndromecaused by a deletion on chromosomethickened excess cicatrix scar tinea keloidInfectious diseasesThese include tuberculosis most common cause world wide and fungal infections. retin a without a prescription Social capital is simply the time and energy invested in creating social bonds between individuals or community members.Dialysis may not be necessary for all people but is often lifesaving especially if serum potassium is dangerously high.The B refers to the bursa of Fabricius an organ in birds in which B cell differentiation and growth were rst noted to occur.In principle therefore we should be able to form a magni fied image of a cell inside the tissue.Learning not to be anxious can often help men delay ejaculation. Viagra Online NERVOUS SYSTEM DEGENERATIVE MOVEMENT AND SEIZURE DISORDERS Alzheimer disease AD Brain disorder marked by gradual and progressive mental deterioration dementia personality changes and impairment of daily functioning.Patients were cared for in different wards that specialized in surgery fractures fever eye diseases bowel problems and other conditions.Personality appears early in life and its resistant to change.Two other significant advances helped the contagion cause.Lasix may also be used for purposes not listed in this medication guide. Isotretinoin Every person consuming regularly alcohol is in a risk of becoming an alcoholic.a hormone from the adrenal glands that reduces inammation and raises blood sugarHowever the manner in which patients were accrued to this study probably biased its findings resulting in substantially higher effectiveness rates than are normally observed in clinical practice.Surgery can be performed in an ambulatory setting.Longest phase lasts to years but varies widely especially with treatmentThe currently available therapies that should be considered for the treatment of erectile dysfunction include the followingA oral phosphodiesterase type PDE inhibitors intraurethral alprostadil intracavernous vasoactive drug injection vacuum constriction devices and penile prosthesis implantation.His radiologic tests and biopsy revealed a malignant tumor or Viagra It protects the individual against anxiety and stress examples are acting out denial and repression..Suppression can also extend the effects of stress and intensify an emotion.