Visit Us On TwitterVisit Us On FacebookVisit Us On GooglePlusVisit Us On PinterestVisit Us On YoutubeVisit Us On Linkedin

প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর : মানুষ পুড়িয়ে কী পেলেন

0

আলোরপথ২৪.কম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন ।

তিনি প্রশ্ন করেছেন গত এক মাসের অবরোধে গাড়িতে পেট্রোল বোমায় দগ্ধ হয়ে অর্ধশত মানুষের মৃত্যুতে বিএনপি-জামায়াত জোটের কী অর্জন হয়েছে তা নিয়েও ।

আজ রোববার সচিবালয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে গিয়ে বিএনপি নেত্রীকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ধ্বংস করা, পুড়িয়ে ফেলা, লাশ ফেলা ছাড়া আর কোনো অর্জন তাদের নাই। এটা করে যদি মনে করেন, বিরাট কিছু করে ফেলেছেন- তা হলে জাতির জন্য দুর্ভাগ্যের।

“কারণ, এরা দেশের নেতৃত্ব দেবে। এরা ক্ষমতায় ছিল। আবার ক্ষমতায় যাবার স্বপ্ন দেখে। কিন্তু সে ক্ষমতা মানুষের লাশের ওপর দিয়ে কেন? সেটাই আমার প্রশ্ন।”

তিনি ক্ষমতায় যেতে হলে গণতান্ত্রিক উপায়েই যেতে হবে বলে মন্তব্য করেন ।

প্রধানমন্ত্রী দশম সংসদ নির্বাচনে না গিয়ে বিএনপি নেত্রী ‘ভুল’ করেছেন মন্তব্য করে বলেন, “ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে খালেদা জিয়া, নির্বাচনে যায় নাই। এর খেসারত জাতি কেন দেবে?

“মানুষ পুড়িয়ে মেরে সেই লাশের ওপর দিয়ে ক্ষমতায় যাবেন? এটা কোন ধরনের বিবেচনা? কী ধরনের কাজ- আমি জানি না। আল্লাহ তাদের সুমতি দিক।”

খালেদা জিয়ার মানসিক সুস্থতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, “বিএনপি নেত্রী বোধ হয় উম্মাদ। নইলে বাড়িঘর ছেড়ে অফিসে থেকে কোন বিপ্লব ঘটাচ্ছেন- আমার কাছে বোধগম্য নয়।”

“এতে উনি কী পাবেন আমি জানি না। আল্লাহ এদের সুমতি দিক- মানুষ পুড়িয়ে মারা বন্ধ করুক, ছেলে-মেয়েরা যাতে এসএসসি পরীক্ষা দিতে পারে।”

খালেদা জিয়া গত ৫ জানুয়ারি দশম সংসদ নির্বাচনের বর্ষপূর্তিতে পুলিশি বাধায় কর্মসূচি পালনে ব্যর্থ হয়ে সারা দেশে লাগাতার অবরোধের ঘোষণা দেন ।

বিএনপি নেত্রী মাঝে মালয়েশিয়ায় ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যু হলেও কর্মসূচি থেকে সরে আসেননি। বিএনপি-জামায়াত জোটের পক্ষ থেকে অবরোধের মধ্যেই ফাঁকে ফাঁকে হরতালের ঘোষণা আসছে।

প্রতিদিনই হরতাল-অবরোধে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গাড়িতে অগ্নিসংযোগ, পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ ও বোমাবাজির ঘটনা ঘটছে।

এরইমধ্যে অবরোধকারীদের পেট্রোল বোমায় দগ্ধ হয়ে ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সব কিছু একটা নিয়মের মধে নিয়ে এসেছি সেই সময় এই হরতাল অবরোধের নামে মানুষ পুড়িয়ে মারা। অবরোধের মধ্যে আবার হরতাল, অর্থাৎ মরার ওপর খাড়ার ঘা। বিএনপি-জামাত জোট মিলে এসব করে যাচ্ছে। জানি না বিএনপি নেত্রীর কী উদ্দেশ্য।”

তিনি এসএসসি পরীক্ষার মধ্যেও হরতাল ডাকার সমালোচনা করে খালেদা জিয়াকে ইঙ্গিতে করে বলেন, “মানুষ লেখাপড়া শিখুক, মানুষ হয়ে উঠুক, উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হোক- তা তিনি চান না।

“জামাত-শিবিরও আবার হরতাল ডাকে। লেখা পড়া শিখলে তো বিভ্রান্ত করতে পারবে না। তাই তারা দেশের মানুষকে লেখাপড়া শিখতে দিতে চায় না। এটাই বোধ হয় তাদের উদ্দেশ্য।

“শুক্রবার-শনিবার আবার হরতাল দেয় কি না- এদের বিশ্বাস নাই। এরা তো ধর্মের নামে ব্যবসা করে। দেখা গেল শুক্রবারেও হরতাল দিয়ে দিল।”

প্রধানমন্ত্রী ‘মানুষ মারার এ আন্দোলনে’ বিএনপি-জামায়াত জোটের অর্জন নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেন, “দিনের পর দিন মানুষ পুড়িয়ে মেরে তাদের অর্জনটা কী? এতোগুলো মানুষকে পঙ্গু করে দেওয়া.. , হাজার হাজার গাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া।”

Share.

Comments are closed.