অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড ম্যাচ

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

এক দিনেই দুই বিশ্বরেকর্ড। একটি দলীয় সর্বোচ্চ রান এবং আরেকটি রানের হিসেবে সবচেয়ে বড় জয়।চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া দুটিরই মালিক।বিশ্বরেকর্ড দুটি এতদিন ভারতের দখলেই ছিল।অস্ট্রেলিয়া পার্থের ওয়াকায় টসে হেরে ব্যাটিং করতে নেমে আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাত্র ৬ উইকেটে ৪১৭ রান করে;বিশ্বকাপে যা দলগত সর্বোচ্চ রান।এর আগে ২০০৭ বিশ্বকাপে ভারত ৪১৩ রান করে বারমুডার বিপক্ষে ।আফগানিস্তান এই পাহাড় সমান রান তাড়া করতে নেমে গুটিয়ে যায় ১৪২ রানেই।২৭৫ রানেই জয় পায় অস্ট্রেলিয়া । যা রানের হিসেবে সবচেয়ে বড় জয়।ওয়ানডের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা ২০০৭ সালে বারমুডাকে ২৫৭ রানে হারিয়েছিল ।এছাড়া অস্ট্রেলিয়ারও সবচেয়ে বড় জয় এটি ।তারা ২০০৩ সালে নামিবিয়াকে ২৫৬ রানে হারিয়েছিল।রেকর্ডময় ম্যাচের নায়ক অস্ট্রেলিয়ার বাহাতি ড্যাশিং ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। ওয়ার্নার ১৩৩ বলে ১৯ চার ও ৫ ছক্কায় ১৭৮ রান করেন । ওয়ার্নার ছাড়া স্টিভেন স্মিথ করেন ৯৫ রান। এই দুই ব্যাটসম্যান দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ২৬০ রান করেন যা অস্ট্রেলিয়ার যেকোন উইকেটে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড।ম্যাক্সওয়েল আফগানিস্তান বোলারদের শেষ হাসিটা কেড়ে নেন ।ম্যাক্সওয়েল পার্থে আফগান বোলারদের বিপক্ষে ব্যাটে ঝড় তুলেন । মাত্র ৩৯ বলে তুলে নেন ৮৮ রান। মারকুটে এই ব্যাটসম্যান ৬টি চার ও ৭টি ছক্কা হাঁকান ।শেষ দিকে হ্যাডিনের ৯ বলে ২০ রানের ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া ৪১৭ রানের পাহাড় সমান টার্গেট পায় ।দাওলাত জাদরান ও শাপুর জাদরান আফগানিস্তানের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন।হামিদ হাসান ও নওরজ মঙ্গল ১টি করে উইকেট নেন ।জবাবে আফগানিস্তান ব্যাটিং করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায়।জনসন একাই নেন ৪ উইকেট। স্টার্ক ও হ্যাজেলউড আর ২টি করে উইকেট নেন। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন অসি অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক ও স্পিনার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ।নওরোজ মঙ্গল আফগানিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৩ রান করেন ।নওরোজ ৩৫ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায় ইনিংসটি খেলেন ।

 

 

 

 

Share.

Comments are closed.