স্কটিশদের হারিয়ে বাংলাদেশের জয়

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

স্কটল্যান্ড বাংলাদেশের বিপক্ষে করেছে ৩১৮ রান ! মাশরাফির আমন্ত্রণে ব্যাটিংয়ে নেমে ৮ উইকেটে ৩১৮ রান করে স্কটল্যান্ড। ৩১৯ রান টপকাতে মাত্র ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ১১ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে সাকিব আল হাসান ও সাব্বির রহমান রুম্মান।সাকিব ৫২ ও সাব্বির রহমান রুম্মান ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন।  বাংলাদেশ পাহাড়সমান রান তাড়া করতে নেমে দলীয় ৫ রানে সৌম্য সরকারকে (২) হারায়। দ্বিতীয় উইকেটে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ব্যাট চালিয়ে যান।১৩০ বলে ১৩৯ রান যোগ করেন এই দুই ব্যাটসম্যান। এ সময় দুই ব্যাটসম্যানই হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন। বাংলাদেশ তাদের দুজনের ব্যাটে চড়ে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে । কিন্তু টাইগাররা হোঁচট খায় মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে। রিয়াদ ৬২ রানে বোল্ড হন । রিয়াদ ৬২ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় ইনিংসটি সাজান । রিয়াদের বিদায়ের পর মুশফিককে সঙ্গে নিয়ে ৪৮ বলে ৫৭ রানের জুটি গড়েন তামিম ইকবাল। কিন্তু তিন অঙ্কের ম্যাজিকাল ফিগার ছুঁতে পারেননি তামিম। তার ইনিংস ৯৫ রানে শেষ হয়। এই ওপেনার ১০০ বলে ৯ চার ও ১ ছক্কায় ৯৫ রান করেন দেশ সেরা। দ্রুত হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন তামিমের পর বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক। মুশফিক সাকিবের সঙ্গে দ্রুত ৪৬ রানের জুটিও গড়েন। কিন্তু ব্যাটিং পাওয়ার প্লে’র তৃতীয় ওভারে (৩৮তম) শট খেলতে গিয়ে আউট হন মুশফিক। ইভান্সের বলে লং অনের ওপর দিয়ে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে ম্যাকলয়েডের তালুবন্দি হন ৪২ বলে ৬০ রান করা মুশফিক। ৬টি চার ও ২টি ছক্কা হাঁকান তিনি।  পরের গল্পটা শুধু সাকিব ও সাব্বিরের। অবিচ্ছিন্ন ৭৫ রানের জুটি গড়ে জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশের। সাকিব ৪১ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৫২ ও সাব্বির ৪০ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৪২ রান করেন।

এর আগে স্কটিশরা কোনো টেস্ট খেলা দেশের বিপক্ষে ৩০০ রানের কোটা পেরিয়েছে প্রথমবারের মতো। বাংলাদেশ তাদের করা ৮ উইকেটে ৩১৮ রানের জবাবে ব্যাট করছে। এই রিপোর্ট লেখার সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১১৭ রান করেছে ১৯ ওভার ৪ বলে।এনামুল কাঁধের ইনজুরিতে পড়েছেন ফিল্ডিং করার সময় । তাকে হাসপাতালে নিতে হয়েছে । তাই তামিমের সাথে ইনিংসটা ওপেন করেন সৌম্য। ২ রান করে ফিরে যান সৌম্য।ক্যারিয়ার সেরা রান করেছেন স্কটল্যান্ডের কোয়েতজার । সহযোগী সদস্য দেশের খেলোয়াড় হিসেবে ওপেনার কোয়েতজার সবচেয়ে বড় রানের স্কোরটাই করেছেন । স্কটল্যান্ড তার ১৫৬ রানের ওপর ভর করে বিশাল রান করতে পেরেছে । শুরুতে মাশরাফি আঘাত করেছিলেন । এরপর আঘাত হানেন তাসকিন। আর তাতে স্কটিশরা ৩৮ রানে দুই উইকেট হারায় । কোয়েতজার ওখান থেকে মাচানের সাথে ৭৮ রানের জুটি গড়েন । ৩৫ রান করে মাচান সাব্বিরের শিকার হন । এরপর কোয়েতজার অধিনায়ক মমসেনের সাথে ১৪১ রানের জুটি গড়ে তোলেন । কোয়েতজার ১০৩ বলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন । মমসেন ৩৯ রান করে আউট হলেও বড় স্কোরের দিকে এগিয়ে যান কোয়েতজার। ১২৯ বলে ১৫০ রান করেন এই ব্যাটসম্যান। ৪৫তম ওভারের সময় তিনি নাসিরের শিকার হবার সময় দলের রান ২৬৯। ১৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় সাজানো কোয়েতজারের ইনিংস। তার বিদায়ের পর বারিংটন (২৬), ক্রসরা (২০) দলের সংগ্রহ তিনশো পার করে দেন।

 

Share.

Comments are closed.