মোবাইল ব্যাংকিং প্রসঙ্গে ড.আতিউর রহমানের প্রশংসা করলেন যুক্তরাজ্য

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

ব্রিটিশ পার্লামেন্ট বাংলাদেশের পোশাকশিল্প শ্রমিকদের মোবাইল ব্যাংকিংয়ের আওতায় আনার সাফল্যকে উদাহরণ হিসেবে দেখছে ।এ ধরনের কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে উপযুক্ত নীতি-পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য গত ৫ মার্চ যুক্তরাজ্যের ওয়েস্ট মিডল্যান্ডসের মেরিডেন এলাকা থেকে নির্বাচিত পার্লামেন্ট সদস্য ক্যারোলিন স্পেলম্যান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমানের প্রশংসা করেন।এ তথ্য বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক নারী দিবসের এবারের মূল প্রতিপাদ্য ‘মেক ইট হ্যাপেন’-এর সঙ্গে দিবসটি উদ্‌যাপনের প্রামাণিক সাক্ষ্য হিসেবে স্পেলম্যান বলেন, ‘যাঁরা নারীর ক্ষমতায়নের পক্ষে কাজ করছেন তাঁদের কথা এখানে উল্লেখ করা শ্রেয় বলে আমি মনে করি। এ পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমানের নাম উল্লেখ করতেই হয়-যিনি বাংলাদেশের পোশাকশিল্প কারখানায় নিয়োজিত নারী শ্রমিকদের মোবাইল ব্যাংকিংসেবা প্রদানে উদ্যোগী ভূমিকা রেখেছেন। এ ধরনের বাস্তবমুখী উদ্যোগ সত্যিই নারীর ক্ষমতায়নে বড় ধরনের পরিবর্তন এনে দেয়।’মোবাইল ব্যাংকিং ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে তৈরি পোশাক ও বস্ত্র খাতে কর্মরত নারীদের কষ্টার্জিত টাকা গ্রামে তাদের স্বজনদের কাছে মুহূর্তের মধ্যে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে । জানুয়ারি শেষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মোট গ্রাহক দাঁড়িয়েছে দুই কোটি ৫২ লাখ ৩৬ হাজার। এর মধ্যে সচল হিসাবের সংখ্যা এক কোটি ১০ লাখ ৫৩ হাজার। আগের মাস ডিসেম্বরে মোট গ্রাহক ছিল দুই কোটি ৫১ লাখ ৮৬ হাজার। আর সচল হিসাব ছিল এক কোটি ২১ লাখ ৫৪ হাজার। এক মাসের ব্যবধানে গ্রাহক ৫০ হাজার বাড়লেও সচল হিসাব কমেছে ১১ লাখ। তা ছাড়া এজেন্ট সংখ্যাও কিছুটা কমে নেমে এসেছে পাঁচ লাখ ৩৬ হাজারে ।তবে গড়ে ৮ শতাংশ বাড়ছে দৈনিক লেনদেন । গত ডিসেম্বরে দৈনিক গড় লেনদেন ছিল ৩৪৯ কোটি টাকা, যা জানুয়ারিতে ৩৭৮ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে।সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় মোবাইল ব্যাংকিংসেবা পৌঁছানোর লক্ষ্যে নীতি-পদক্ষেপ গ্রহণের কারণে সম্প্রতি ‘অ্যালায়েন্স ফর ফাইন্যানশিয়াল ইনক্লুশন (এএফআই)’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক ।এদিকে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিশ্ব অর্থনীতির সক্ষমতা নিয়ে কাজ করা লন্ডনভিত্তিক সাময়িকী ‘দি ওয়ার্ল্ডফলিও’ মূল কাজের সঙ্গে কোনোরূপ আপস না করে সামাজিক দায়বোধ ও পরিবেশবান্ধব অর্থায়ন খাতে গভর্নরের অগ্রণী ভূমিকার ওপর ।

 

 

Share.

Comments are closed.