বাবা-মায়েরাই ফেসবুকে বেশি সময় দেন

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

ডেস্ক রিপোর্ট

যারা বাবা-মা হয়েছেন তাদের দারুণ ব্যস্ত থাকতে হয় সংসার-সন্তান সামলাতে। কিন্তু এদের জীবনের স্মার্টফোন হয়ে উঠেছে অতি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বাবা-মায়েরা অন্যদের চেয়ে ফেসবুকে ১.৩ গুণ বেশি সময় দিচ্ছেন।ফেসবুক আইকিউ এক গবেষণার পর এ তথ্য জানায়।

এক ব্লগ পোস্টে তারা জানায়, পরিবারে সন্তান আসায় জীবনযাপনে বড় ধরনের পরিবর্তন আসে। বিশেষ প্রয়োজনেই মোবাইল তাই জরুরি অংশ হয়ে ওঠে। প্রতিদিনের কাজ গুছিয়ে নিতে মোবাইলে বেশ কাজে লাগে। সন্তানের ছবি শেয়ার করা, তাদের কিছু একটা দেখিয়ে দেওয়া ইত্যাদি কাজে স্মার্টফোন দারুণ জনপ্রিয় বাবা-মার কাছে । ফেসবুক আইকিউ ফেসবুকে বাবা-মায়ের আচরণ বিশ্লেষণ করে দেখেছে। তারা জানায়, যারা বাবা-মা হননি তাদের চেয়ে বেশি সময় ফেসবুক ব্যবহার করেন বাবা-মায়েরা।

ফেসবুক আইকিউ সোশাল মিডিয়া জায়ান্টের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। তারা গবেষণা চালান ২৫-৬৫ বছর বয়সী বাবা-মায়েদের ওপর। প্রতিষ্ঠানটি বেছে নেন অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, জার্মানি, ম্যাক্সিকো, ব্রিটেন এবং আমেরিকার বাবা-মায়েদের। ইপসস মিডিয়াসিটি এবং সাউন্ড রিসার্চ-এর মাধ্যমে ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রাম থেকে প্রচুর সংগ্রহ করা হয়। ৫০-৬৫ বছর বয়সী বাবা-মায়ের চেয়ে ৩০ শতাংশ বেশি ফেসবুক ব্যবহার করেন ১৮-৩৪ বছর বয়সী বাবা-মায়েরা। এ বয়সীদের ৮৩ শতাংশ জানান, তারা তাদের বাবা-মায়ের চেয়ে ইন্টারনেট ও ফেসবুক থেকে অনেক বেশি তথ্য সংগ্রহ করেন। তবে পুরনো বাবা-মায়েরা জানান, তারা স্মার্টফোন বা ফেসবুক পেয়েছেন অনেক পরে। ব্লগে আরো বলা হয়, ক্রমশ নিজেদের প্রতি সচেতন হয়ে ওঠছেন আধুনিক বাবা-মায়েরা। নিজেদের দেখভাল করতে পারলে সহজেই সক্ষম হবেন অন্যান্য কাজ করতে।তারা এ উপায়েই মানসিক চাপ সামলানো ছাড়াও নানা চাহিদা পূরণ করে থাকেন পরিবারের। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Share.

Comments are closed.