বাংলাদেশ আজ আর ক্ষুধা দারিদ্র্য-পীড়িত নয়: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা 

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

এস এম সিরাজুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান উন্নত ও পেশাদার সেনাবাহিনীর প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে ১৯৭৪ সালেই প্রতিরক্ষা নীতিতে নির্দেশনা দিয়েছিলেন, ‘পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা নদী সমগ্র দেশকে তিনটি ভাগে বিভক্ত করেছে, সেনাবাহিনীকেও সেই মোতাবেক সক্ষমতার দিক থেকে স্বতন্ত্র ও প্রশাসনিকভাবে সামর্থ্যবান তিনটি কমান্ডে নিয়োজিত হতে হবে। বৃহস্পতিবার রংপুর জেলার পাগলাপীর খালিয়ায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের শীতকালীন মহড়া ‘সুচাগ্র মেদেনি’ প্রত্যক্ষ করার পর দরবার হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলে|

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  বলেন,বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আজ সমকালীন বিশ্বের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ সামরিক বাহিনী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। এ লক্ষ্যে পেশাগত মানের উৎকর্ষতা সাধন এবং সর্বাধুনিক প্রশিক্ষণ গ্রহণের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।বাংলাদেশ আজ আর ক্ষুধা দারিদ্র্য-পীড়িত নয়, এই সরকার দারিদ্র্যের হার ৪০ থেকে কমিয়ে ২২ দশমিক ৪ শতাংশে নিয়ে এসেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী এ সময় নিজস্ব উদ্যোগে পদ্মাসেতু নির্মাণের উদ্যোগসহ দেশের আর্থসামাজিক ও অবকাঠামো উন্নয়নের বিভিন্ন খন্ড চিত্র তুলে ধরেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি নিশ্চিত যে, দেশের অখ-তা রক্ষায় যেকোনো অশুভ শক্তিকে দৃঢ়ভাবে প্রতিহত করতে আমাদের সেনাবাহিনী সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুত। আপনাদের প্রশিক্ষণের দক্ষতায় বলতে পারি আপনারা সত্যিকার অর্থেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গড়ে ওঠা বাহিনী।

Share.

Comments are closed.