বন্দরে গুলিবর্ষণ নগদ ২০লাখ টাকা-স্বর্ণালংকার লুট, এলাকায় আতংক

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

সাব্বির আহমেদ সেন্টু, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:

নারায়ণগঞ্জ বন্দরের মৃত্যুপূরী খ্যাত উত্তরা ল আবারো উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। মদনপুরের এক সময়কার আতংক শীর্ষ সন্ত্রাসী কামরুজ্জামান কামু দীর্ঘদিন জেল খেটে জামিনে বেরিয়ে সম্প্রতি ষ্ট্রোকে মৃত্যুবরণ করলেও কামুর অবর্তমানে তার স্থান দখল করে নিয়েছে ওই বাহিনীর সেকেন্ড-ইন-কমান্ড মনিরুজ্জামান মনু। ক্রস ফায়ারের ভয়ে মুরাদপুরের আতংক মনু এতদিন গা ঢাকা দিয়ে বেড়ালেও ইদানীং সে এলাকায় ফিরে আধিপত্য বিস্তারে মরিয়া হয়ে উঠেছে। এর ধারাবাহিকতায় মনু বেশ কিছুদিন ধরে মুরাদপুরের হাজী নুরুল হকের ছেলে কনষ্ট্রকশন ঠিকাদার মনির হোসেনের কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে এর জের ধরে বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটায় মনিরের ভাই সৌদী ফেরত টিটু’ কাঁচপুর থেকে দেওয়ানবাগ নেমে বাড়িতে যাওয়ার পথে মনু ও তার সাথে থাকা আরো ৫/৬ সন্ত্রাসী মাইক্রোবাসযোগে এসে তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। গুলির শব্দ পেয়ে টিটু পার্শ্ববর্তী ডোবায় ঝাপ দিয়ে ডাক চিৎকার করলে আশ পাশের লোকজন জড়ো হতে থাকলে অবস্থা বেগতিক বুঝে সন্ত্রাসীরা পালাণোর সময় তোফাজ্জল নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করে গণধোলাই দেয়। গণধোলাইয়ের একপর্যায়ে সে পালিয়ে রক্ষা পায়। পরে সন্ত্রাসী তোফাজ্জল থানায় গিয়ে ব্যবসায়ী মনির হোসেন ও অন্যান্যদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ মনির হোসেনের চাচা শহীদকে আটক করে। এদিকে পুলিশ সন্ত্রাসীদের পক্ষে অবস্থান নেয়ার সুযোগে মনু বাহিনী ২০/২৫ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে দেশী-বিদেশী অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সন্ধ্যায় মনির হোসেনের বাড়িতে ফের হামলা চালিয়ে গুলিবর্ষণ ও ব্যাপক ভাংচুর তান্ডব চালায়। এ সময় ভয়ে মনিরের পরিবারের সদস্যরা প্রাণ রক্ষার্থে অন্যত্র পালিয়ে গেলে ফাঁকা বাড়ি পেয়ে হামলাকারীরা মনিরের বসত ঘরের সমস্ত আসবাবপত্র ভাংচুর করে। পরে ষ্টীলের সোকেছে রক্ষিত নগদ ২০ লাখ টাকা ও ২০ভরি স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। সন্ত্রাসীদের সসস্ত্র হামলার খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে দেওয়ানবাগ ও মদনপুরসহ আশ পাশের সবক’টি মসজিদের মাইকে লোকজনকে জড়ো হওয়ার আহবান জানানো হয়। মাইকের শব্দ পেয়ে ৪ গ্রামবাসী বেরিয়ে পড়লে সন্ত্রাসী মনু বাহিনী গুলিবর্ষণ করে আতংকের মাধ্যমে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এ ব্যাপারে টিটুর বড় ভাই মনির হোসেন বাদী হয়ে বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ পরিদর্শণ করে ঘটনাস্থল হতে গুলির খোসা উদ্ধার করে।

Share.

Comments are closed.