Visit Us On TwitterVisit Us On FacebookVisit Us On GooglePlusVisit Us On PinterestVisit Us On YoutubeVisit Us On Linkedin

নাট্যালোকের আয়োজনে পাংশায় সংবর্ধনা ও সম্মাননা প্রদান এবং পাঁচ দিনব্যাপী নাট্যানুষ্ঠান শুরু

0

আলোরপথ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ 

উজ্জ্বল কুমার কুন্ডু, পাংশা প্রতিনিধি, রাজবাড়ী

রাজবাড়ীর পাংশা পৌরসভা চত্ত্বরে ১৭ই ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখ সন্ধ্যায় জেলার সর্বোচ্চ করদাতা জেলা আওয়ামীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোঃ জিল্লুল হাকিম এম.পি এবং পাংশা পৌরসভার মেয়র জনাব আব্দুল আল মাসুদ বিশ্বাসকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া পাংশা উপজেলার প্রয়াত গুণী শিল্পীদের মরণোত্তর সম্মাননা প্রদান করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী জেলার বিশিষ্ট দানবীর,শিক্ষা ও সংস্কৃতি ও জনসেবার কিংবদন্তী প্রানপুরুষ, ডি.ডি.সি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব এ.কে.এম রফিকউদ্দিন (পান্না মিয়া)। উক্ত অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীগের সভাপতি, রাজবাড়ী-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোঃ জিল্লুল হাকিম।

সেই সাথে পাঁচ (০৫) দিনব্যাপী নাট্যানুষ্ঠান শুরু হয়েছে। পাংশার প্রথিতযশা অভিনয় শিল্পী তৈরীর কারিগর “নাট্যালোক” এর আয়োজনে বিগত বছরগুলোর ন্যায় এবারও অশ্লীলতা,নগ্নতা ও অসাম্প্রদায়িক তার বিরুদ্ধে আন্দোলন প্রতিপাদ্য শীর্ষক   “বার্ষিক নাট্যানুষ্ঠান -২০১৬” শুভ সূচনা হচ্ছে । মরণোত্তর শিল্পীরা হলেন, অনুপ কুমার দত্ত, গোবিন্দ প্রসাদ কুন্ডু,মলয় কুমার শর্মা, রাধু বিশ্বাস,দীন মোঃ দীলু,নাজির হোসেন নীলু চৌধুরী , সুনীল কুমার সাহা,রবীন্দ্রনাথ চূর্ণকার,সন্তোষ বিশ্বাস, ডাঃ সন্তোষ কুমার দে, হৃষিকেশ রায়, বিশু বাগচী প্রমুখ।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আঃ ওহাব,জনাবা সাঈদা হাকিম, পৌরমেয়র আব্দুল আল মাসুদ বিশ্বাস, উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফরিদ হাসান ওদুদ, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা মাহমুদ হেনা মুন্সী, পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস.এম শাহজালাল, উপজেলা আওয়ামীগের সভাপতি এ.কে.এম শফিকুল মোর্শেদ আরজ, সাধারণ সম্পাদক হাসান আলী বিশ্বাস, মাছপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার সাইফুল ইসলাম বুড়ো প্রমুখ।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নাট্যালোক সভাপতি উত্তম কুমার কুন্ডু। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পাংশা সরকারি কলেজের অধ্যাপক হাজারী আবুল হাশিম। প্রয়াত শিল্পীদের পক্ষ হতে তাদের আত্মীয় স্বজনেরা সম্মাননা পদক গ্রহণ করেন।
বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়, এ.কে.এম রফিকউদ্দিন এবং তার স্ত্রীকে। রাজবাড়ী জেলার সর্বোচ্চ তরুণ  করদাতা জনাব আশিক মাহমুদ মিতুল এবং তার রত্নগর্ভা জননী জনাবা সাঈদা হাকিমকে।

এরপর মঞ্চায়িত হয় ওপার বাংলার প্রক্ষাত নাট্যকার নির্মল কুমার মুখোপাধ্যায় রচিত “গরীব কেন মরে ” নাটক। সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিট হতে ২১ শে ডিসেম্বর একই স্থানে আরো চারটি নাটক মঞ্চায়িত হবে।

Share.

Comments are closed.