19 C
Dhaka
January 18, 2022
আলোর পথ

মানবতাবিরোধী অপরাধে জার্মানিতে সিরীয় কর্নেলের যাবজ্জীবন

সিরিয়ার সাবেক কর্নেল আনোয়ার রাসলানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন জার্মানির একটি আদালত। এক দশক আগে সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের একটি জেলে মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত থাকায় তাকে এ শাস্তি দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

খবরে বলা হয়েছে, দণ্ডপ্রাপ্ত আনোয়ার রাসেল সিরিয়ার একজন উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তা ছিলেন। দায়িত্বে থাকাকালীন ‘ব্রাঞ্চ ২৫১’ যা দামেস্কের কুখ্যাত আটক কেন্দ্রের তদন্ত ইউনিটের প্রধান ছিলেন। সেই সময় তার বিরুদ্ধে ৪ হাজার বন্দিকে নির্যাতন, একাধিক হত্যা, যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণের অভিযোগে তিনটি মামলা হয়। মামলাগুলোর অপরাধে তার জড়িত থাকার প্রমাণ তদন্তে এসেছে।

সিরিয়ায় দীর্ঘ সময় যুদ্ধ চলাকালীন আসাদ সরকারের হাতে নির্যাতিত সিরিয়ানদের ন্যায় বিচারের রায়ের প্রথম ধাপ বলে মনে করা হচ্ছে। দেশটির সরকাররের নেতৃত্বে নির্যাতনে বিশ্বের প্রথম ফৌজদারি মামলা সাবেক কর্নেল রাসলানের বিরুদ্ধে ছিল।

রাসলান সিরিয়ার রাজধানীর আল-খতিব কারাগারে ২০১১ সালের এপ্রিল থেকে ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে চার হাজার জনের বেশি বন্দির ওপর নির্যাতনের তত্ত্বাবধান করেছেন বলে যুক্তি দেন আদালতের প্রসিকিউটররা। ওই সবসময় নির্যাতনে ৫৮জন বন্দি নিহত হন।

২০১২ সালে তিনি সিরিয়া ত্যাগ করে জার্মানি আসেন। এরপর ২০১৪ সালে সাবেক সিরিয়ান এই কর্নেল জার্মানিতে আশ্রয় চান। তবে সিরিয়ায় বিভিন্ন অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে ২০১৯ সালে তাকে গ্রেফতার করা হয়।